Ads1

ঈদের আগের দিনেও ক্রেতাদের পদচারণায় মুখরিত কুলাউড়ার মার্কেটগুলো

ঈদের আগের দিনেও ক্রেতাদের পদচারণায় মুখরিত কুলাউড়ার মার্কেটগুলো


কুলাউড়া (মৌলভীবাজার)প্রতিনিধি ::

রাত পোহালেই পালিত হবে মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের পবিত্র ঈদুল ফিতর।  ঢাকা ছেড়ে সবাই এখন নিজ গন্তব্যে এসে পৌঁছেছে, এর প্রতিছবি দেখা যাচ্ছে কুলাউড়ার বিভিন্ন শপিং মলে। বিভিন্ন মার্কেটে আজকেও মানুষের খুবএকটা কমতি দেখা যায়নি।


সোমবার (২মে )মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার কুলাউড়া এবং ব্রাক্ষণবাজারের বিভিন্ন মার্কেট ঘুরে দেখা যায়, সারাদিনই ক্রেতাদের পদচারণায় মুখরিত ছিলো মার্কেটগুলো। তবে সন্ধ্যা নামার সাথে সাথে ক্রেতাদের ভিড় কমতে শুরু করেছে। 


এর আগে প্রতিদিন প্রতিটি মার্কেটেই ইফতারের পর ক্রেতাদের উপচেপড়া ভিড় দেখা গেছে। তবে আগামিকাল ঈদ থাকার কারনে আজ সেরকম থাকবেনা বলে ভাবছেন ব্যাবসায়ীরা।


কুলাউড়ার মিলি প্লাজাতে কেনাকাটা করতে আসা রাইসা ইসলাম বলেন, শেষ সময়ে এসে তুলনামূলক কম দরদাম করে পছন্দের পোশাক কিনেতে পেরেছেন। এর জন্যে তিনি অতন্ত্য খুসি। আলতাফ মিয়া জানান, দিনমজুর হিসেবে শেষ দিনেই বেছে নিয়েছেন কেনাকাটার জন্যে। কারন শেষ দিন তুলনামূলক কম দামে পাওয়া যায় কাপড়।


ব্যবসায়ীরা জানান, মহামারি করোনার কারণে গত ২ বছর ঈদে তেমন ব্যবসা হয়নি। এবার গত ২ বছরের খরা কেটেছে। এবার রমজানের শুরু থেকেই ঈদকেন্দ্রিক বিক্রি ভালো হচ্ছে। তবে মূল বিক্রি জমে উঠেছে ১৫ রোজার পর থেকে। আজকেও সারাদিন ক্রেতাদের মুটামুটি ভালোই আসা-যাওয়া ছিলো।


এদিকে ঈদে সুলভ মূল্যে অল্প আয়ের মানুষের কেনাকাটার সবচেয়ে বড় ভরসাস্থল ফুটপাত। তাই ঈদের কেনাকাটায় শেষ মুহূর্তে কুলাউড়া ও ব্রাক্ষণবাজারের ফুটপাতগুলোতে ভিড় দেখা গেছে। 


জাফলং নিউজ/ডেস্ক/শুভ