Ads1

সিলেটে ফ্রিলান্সারদের মিলনমেলা


কামরান আহমদ, মৌলভীবাজার:: ফ্রিলান্সাররা বেশিরভাগ সময়ই ঘরে বসে কাজ করেন। একে অন্যের সঙ্গে তাদের যোগাযোগের বড় অংশ হয়ে থাকে ভার্চুয়ালি। অনলাইনেই চলে পরিচয়পর্ব, কথাবার্তা, আলোচনা এমনকি আড্ডাও। কিন্তু যখন দেখা হওয়ার সুযোগ আসে তখন বাধ ভাঙ্গা জোয়ারের মতো সবাই হাজির হন মিলনমেলায়। 

এমনি এক আয়োজনে হাজির হয়েছেন সিলেট বিভাগের কিছু সফল ফ্রিলান্সাররা। শুক্রবার বিকেলে 'ফ্রিলান্সার্স সিলেট' গ্রুপের আয়োজনে সিলেটের শাহী ঈদগাহ এলাকার উনোন রেস্টুরেন্টে দলে দলে বিভিন্ন জেলা উপজেলা থেকে হাজির হয়েছেন ফ্রিলান্সাররা। প্রায় অর্ধশত ফ্রিলান্সারদের এক মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে৷ 

এসময় ফ্রিলান্সার্স সিলেট গ্রুপের এডমিন সুলেমান আহমদের সভাপতিত্বে ও আলি হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিতরা তাদের ফ্রিলান্সিং জার্নির অভিজ্ঞতা শেয়ার করেন। 

বক্তাদের বক্তব্য থেকে জানা যায়, জীবনে অনেক পরিশ্রম, সময়, ঘুমহীন রাতের ফসল হিসেবে তারা আজ প্রতিষ্ঠিত হয়েছেন। কেউ কেউ ফ্রিলান্সিং এর উপার্জন দিয়েই ধরেছেন পরিবারের হাল। শিক্ষার্থী থাকাকালীয় সময়েও অনেকে হয়ে উঠেছেন উদ্যোক্তা। 

বক্তারা আরোও বলেন, যারা বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কোর্স করার কথা ভাবছেন৷ তারা যেন কোর্সের আগে ওই প্রতিষ্ঠানের বেকগ্রাউন্ড, মার্কেটপ্লেস সহ যাবতীয় রিসার্চ করে যায়। অন্যথায় ধোকা খাওয়ার সম্ভাবনা থাকতে পারে। আমরা চাই আমাদের সিলেটে সৎ এবং পরিশ্রমী যোগ্যতাসম্পন্ন ফ্রিলান্সার তৈরি হউক। নতুনরা যাতে যোগ্যতার নামে কোনো প্রতারণার স্বীকার না হয়।

এডমিন তোফায়েল আহমেদ বলেন, নতুনরা যাতে ধোকা না খায়, তারা যাতে সঠিক গাইডলাইন পায় এজন্যেই আমাদের এই গ্রুপ খোলা। শুরুতেই যেন কেউ ঝড়ে না পড়ে।  আমরা সবাই সংঘবদ্ধ হয়ে একে অপরকে সহযোগিতা করে যাবো। 

ডিজিটাল মার্কেটার রুবি বেগম বলেন, আমি নারী মানে আমি সব পারি৷ তবে এদেশের নারীদের সুযোগটা কম থাকে বিধায় আমরা এখনো অনেক পিছিয়ে। তবে ফ্রিল্যান্সিং এমন একটা পেশা যেখানে সঠিক গাইডলাইন পেলে ঘরে বসেই নিজেকে এবং দেশকে অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায়। ৮/১০ জন মানুষের মতো দেশের রেমিট্যান্স যোদ্ধা হিসেবে অর্থনীতিতে বিরাট ভুমিকা রাখছে নারীরাও। আজকের এই মিলন মেলা তার এক যুগান্তকারী পদক্ষেপ।  শেখার শেষ নেই, এমন আয়োজন অন্তত মাসে একবার হওয়া উচিত যাতে নতুনরা শেখার ভালো দিকনির্দেশনা পায়, শিখতে আগ্রহী হয়। মেয়েরা যেনো আরো এগিয়ে আসে, এমন পরিচ্ছন্ন আয়োজন বার বার হোক।

প্রথম অধিবেশনে ফ্রিলান্সার্স সিলেট গ্রুপের এডমিন সুলেমান আহমদ তার সফলতার গল্প শোনান। গতানুগতিক চাকরির পিছনে না ছুটে কিভাবে অনলাইন নিয়ে কাজ করার সুফল পেয়েছেন সেসব কথা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, রিয়েল ফ্রিলান্সিং নাম ইউজ করে অনেক কিছু করা হচ্ছে। রিয়েল ফ্রিলান্সিং কনসেপ্টটা যাতে সবার সামনে তুলে ধরা যায় এনিয়ে আমরা তৎপর থাকবো।


জাফলং নিউজ/ডেস্ক/কেকে